1. [email protected] : magura :
শুক্রবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৫:০৩ অপরাহ্ন

বিদেশি ফল অ্যাভোকাডো চাষ মাগুরায় জনপ্রিয় হচ্ছে- দৈনিক মাগুরা

এস আলম তুহিন ,মাগুরা
  • Update Time : মঙ্গলবার, ১৭ আগস্ট, ২০২১
  • ৭৪ Time View

মাগুরায় অ্যাভোকাডো উৎপাদনে সফলতা পেয়েছে মাগুরা হর্টিকালচার সেন্টার । বিদেশি ফল হিসেবে দিন দিন অ্যাভোকাডো চাষ মাগুরায় জনপ্রিয় হচ্ছে । এটি অনেকটা সৌখিন ফল । তাই অনেকে বাড়ির উঠানে অথবা ছাদে চারাগাছ রোপন করে পেয়েছেন সফলতা । গাঢ় সবুজ বর্ণেও ফলটি দেখতে অনেকটা আমাদেও দেশের পেয়ারা ও পেঁপের মতোই । খেতে সুস্বাদু,অনেক পুষ্টিগুণ সমৃদ্ধ বিদেশি এই ফলে রয়েছে ভিটামিন সি,মিনারেল,শর্করা ও প্রোটিন ।

মাগুরা হর্টিকালচার সেন্টারের উদ্যানতত্ত¡বিদ মো: রোকুনুজ্জামান বলেন,অ্যাভোকাডো একটি পুষ্টিগুণ সমৃদ্ধি বিদেশি ফল । আমরা হর্টি কালচার সেন্টারের মা গাছ থেকে চারা উৎপাদন কওে বিক্রি করছি । এই ফল দেখতে অনেকটা পেয়ারা,পেঁপে অথবা আমের মতো । রং গাঢ়ো সবুজ । ফলটি যখন পাকে তখন ভেতরের অংশ অনেকটা মাখনের মত দেখায় । খেতে খুবই সুস্বাদু । আমাদেও এখানে প্রতিটি চারার দাম ২৫০-৪০০ টাকা । বাজাওে আভোকাডো ফল প্রতি কেজি ১ হাজার টাকা থেকে দেড় হাজার টাকায় বিক্রি হচ্ছে ।

তিরি আরো বলেন,মধ্য আমেরিকার এ ফল এখন বাংলাদেশেই ফলছে । পুষ্টিগুন ও উচ্চমূল্য হওয়ার কারণে অনেকে আগ্রহী হয়েছে অ্যাভোকাডো চাষে । মাগুরা হর্টিকালচার এ ফলের চারা কলম তৈরিসহ চাষ সম্প্রসারণে উদ্যোগ নিয়েছে । বিশ্বেও সব ফলের মধ্যে প্রথম সারিতে যে কয়েকটি ফলকে ধরা হয় তার মধ্যে অ্যাভোকাডো অন্যতম । মেক্সিকো ও মধ্য আমেরিকার স্থানীয় ফল হলেও পুষ্টি গুণের কারণে সারাবিশ্বেই চাহিদা রয়েছে এ ফলের । বাংলাদেশেও অ্যাভোকাডো চাষ সম্প্রসারিত হচ্ছে । বিদেশি ফল হওয়ায় একটু বাড়তি যত্্ন  নিতে হয় অ্যাভোকাডো চাষে । অ্যাভোকাডো ফলটি খেতে খুব সুস্বাদু না হলেও এর পুষ্টিগুণের কারণে অনেকে খান ফলটি । বাংলাদেশের বড় বড় সুপারসপে উচ্চমূল্যে বিক্রি হয় এ ফলটি । এক একটি ফলের ওজন হয় ৮শ’ গ্রাম থেকে ১ কেজি পর্যন্ত । একটি মাঝ বয়সি গাছ থেকে ৫০-৬০ হাজার টাকার ফল বিক্রি করা যায় ।

মাগুরা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক সুশান্ত কুমার প্রামানিক বলেন, অ্যাভোকাডো একটি পুষ্টিগুণ সমৃদ্ধি বিদেশি ফল । আমরা হর্টিকালচার সেন্টারে আভোকাডো চাষে সফলতা পেয়েছি । এখানে মাতৃগাছের পরিচর্চা ও চারা উৎপাদন শুরু হয়েছে । বিদেশি ফল হওয়ায় একটু বাড়তি যতœ নিতে হয় অ্যাভোকাডো চাষে ।আমরা জেলার বিভিন্ন সরকারি অফিসসহ বাসা বাড়ির ছাদে এই ফলের চারা গাছ রোপন করার পরামর্শ দিয়ে আসছি । এই ফলটিতে রয়েছে এ্যান্টিঅক্সিডেন্ট যা শরীরের রোগ প্রতিরোধে সহায়ক ভ‚মিকা পালন করে ।

তাছাড়া এ ফলটি ক্যান্সার ও ডায়াবেটিক রোগের প্রতিরোধেও অনেকটা কাজ করে । উচ্চ মূল্যে এ ফলটি ইতিমধ্যে বাংলাদেশের অনেকে জেলাতে চাষ শুরু হয়েছে । তাই বাংলাদেশের অর্থতৈনিক উন্নয়নের এ ফলটি যথেষ্ট হায়ক ভ‚মিকা পালন করবে বলে আমি মনে করি । শুধু আমদানি নয় ভবিষ্যতে এ দেশে আভোকাডোর উন্নত চাষ হলে আমরাই বিদেশে এটি রপ্তানি করতে পারবো ।

Please Share This Post in Your Social Media

More News Of This Category
© ২০২১ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | দৈনিক মাগুরা.কম
Theme Designed BY Kh Raad ( Frilix Group )